আন্তর্জাতিকভাবে মোকাবেলার তাগিদ আমেনা মহসিনের

বৃহস্পতিবার, ০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ (১৬:৩৫)
আন্তর্জাতিকভাবে-মোকাবেলার-তাগিদ-আমেনা-মহসিনের

আমেনা মহসিন

সামরিক সংঘাতে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা লাখ লাখ রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিপাকে বাংলাদেশ। একদিকে বন্যার ক্ষয়-ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই এমন সমস্যা মোকাবেলায় বেশ বেগ পেতে হচ্ছে সরকারকে।

এ সংকট আন্তর্জাতিকভাবে মোকাবেলার তাগিদ দেন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক আমেনা মহসিন।

এক্ষেত্রে কূটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ওআইসি কিংবা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভায় প্রস্তাব রাখার পরামর্শ তাদের।

একই সঙ্গে বাংলাদেশের স্বার্থান্বেষী মহল যাতে রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করতে না পারে সেদিকে নজরদারি বাড়ানো উচিৎ বলে মনে করছেন তারা।

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে দীর্ঘদিন ধরে কূটনৈতিকভাবে বাংলাদেশ চেষ্টা করে আসলেও পরিস্থিতির উন্নতির চেয়ে অবনতিই বেশি হতে দেখা গেছে। যার প্রত্যক্ষ প্রমাণ আট মাসের ব্যবধানে লক্ষাধিক রোহিঙ্গার বাংলাদশমুখী ঢল।

যদিও এবার রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে নানামুখী তৎপরতা চালাতে শুরু করেছে মুসলিম প্রধান দুই দেশ তুরস্ক ও ইন্দোনেশিয়া। কিন্তু সবচেয়ে বড় ধাক্কা বাংলাদেশকেই সামলাতে হচ্ছে।

এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে— এই সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশকে কূটনৈতিক তৎপরতা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রয়োজনে আসছে জাতিসংঘ পরিষদের সাধারণ সভায় প্রস্তাব রাখারও তাগিদ দিয়েছেন অধ্যাপক আমেনা মহসিন।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নেবার বিষয়টিকে সমর্থন করবে না চীন বলেন আমেনা মহসিন।

আমেনা মহসিন বলেন, বাংলাদেশ এটা জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে অবশ্যই আনতে পারে এবং আনা প্রয়োজন আছে।

বাংলাদেশ সরকারের সামনে নির্বাচন, সেটাও সরকারকে মাথায় রাখতে হবে। এ ইস্যু তুলে যেন কেউ রাজনীতি না করতে পারে অথবা রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করতে না পারে সেদিকে সরকারকে কঠোর নজরদারি রাখতে হবে বলে মনে করেন তিনি।

পাশাপাশি আঞ্চলিক দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনার সঙ্গে মিয়ানমারের সঙ্গে দিপাক্ষিক তৎপরতা চালিয়ে যেতে হবে। এতেও মিয়ানমার নিজের অবস্থান পরিবর্তন না করলে বিকল্প পন্থা খোঁজার পরামর্শ দিলেন আরেক বিশেষজ্ঞ।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

ঠাকুরপাড়ায় হিন্দু বাড়িগুলোতে হামলায় নেতৃত্ব দেয় জামাত-বিএনপি-জাপা

চলছে রাজনৈতিক দরকষাকষি, নির্বাচন করতে পারবে না জামাত

ভয়াল ১২ নভেম্বর: প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় কেড়ে নিয়েছিল ৫ লাখ মানুষের জীবন

শেষ ধাপে রয়েছে একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলার বিচার প্রক্রিয়া

উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর

অভ্যুত্থান সফল না হওয়ার জন্য মোশাররফের অদূরদর্শিতাই দায়ী